টুকরো সংবাদ

এক দিনেই পানিশূন্য হয়নি মঙ্গল

সৌরজগতের লােহিত গ্রহ মঙ্গল একসময় উষ্ণ ও ভেজা ছিল। জীবনধারনের উপযুক্ত পরিবেশও ছিল সেখানে। কিন্তু একটা সময় গ্রহটির বায়ুমণ্ডল পাতলা হতে থাকে, হারিয়ে যেতে থাকে পানি। এভাবে শত কোটি বছর পর মঙ্গল গ্রহ রুক্ষ, শীতল পরিবেশ পেয়েছে বলে জানান বিজ্ঞানীরা। যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসার মঙ্গলযান। কিউরিওসিটির পাঠানাে তথ্যের ভিত্তিতে এসব ধারণার কথা বলেছেন বিজ্ঞানীরা।

২৬ নভেম্বর ২০১১ নাসা মহাকাশযানে করে পৃথিবী থেকে কিউরিওসিটিকে উৎক্ষেপণ করে। পরের বছর অর্থাৎ ৬ আগস্ট ২০১২ মঙ্গলগ্রহের গেল ক্রেটারে অবতরণ করে মঙ্গলযানটি। এরপর ২০১৪ সাল পর্যন্ত দুই বছরে এই মঙ্গল্যান গেল ক্রেটার থেকে তিন মাইল উচু মাউন্ট শার্পে উঠে আসে। গেল ক্রেটার মঙ্গলের বুকে বিশাল একটি খাদ। এ খাদের বিষয়ে তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ করতেই কিউরিওসিটিকে উৎক্ষেপণ করা হয়েছিল।

নাসার গবেষকরা বলছেন, মঙ্গল আসলে বেশ কয়েক দফায় অদ্র ও শুষ্ক হয়েছে। এভাবে চলতে চলতে একসময় গ্রহটির পৃষ্ঠের সব পানি হারিয়ে ফেলে। এ ঘটনা | ঘটেছে আজ থেকে প্রায় ৩০০ কোটি বছর আগে।

সম্প্রতি নাসা জানায়, কিউরিওসিটিতে কেমক্যাম নামের একটি যন্ত্রাংশ রয়েছে। এটি লেজার রশি ছুড়ে যেকোনাে পাথরকে ১৮,০০০ ডিগ্রি ফারেনহাইট পর্যন্ত উত্তপ্ত করতে পারে। এ তাপে পাথর বাষ্পীভূত হয়ে প্লাজমা তৈরি করে। সেই প্লাজমা বিশ্লেষণ করেই বিজ্ঞানীরা পাথরের খনিজ ও রাসায়নিক উপাদান সম্পর্কে ধারণা পান।

এই বিভাগ থেকে আরো পড়ুন

Md. Mahabub Alam

I am a committed educator, blogger and YouTuber and I am striving to achieve extraordinary success in my chosen field. After completing Masters in Anthropology from Jagannath University, I am working as Chief Accounts Officer in a national newspaper of the country. I really want your prayers and love.
Back to top button